jagannathpurpotrika-latest news

আজ, , ২৬শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

সংবাদ শিরোনাম :



ছাতকে তারাবিল শুকিয়ে মৎস্য আহরণ বন্ধ করে দিয়েছে উপজেলা প্রশাসন

ছাতক প্রতিনিধি :: ছাতকে সরকারি লিজকৃত তারাবিলের পানি শুকিয়ে মৎস্য আহরণ বন্ধ করে দিয়েছে উপজেলা প্রশাসন। স্থানীয়দের এক অভিযোগের প্রেক্ষিতে রবিবার সহকারি কমিশনার (ভুমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মোঃ ইসলাম উদ্দিন ঘটনাস্থলে পৌছে পানি সেচের ২টি পাম্প বন্ধ করে দেন।
জানা যায়, ছাতক সদর ইউনিয়নের কুরিয়া মৎসজীবী সমবায় সমিতির নামে তারাবিল জলাশয় সরকারিভাবে লিজ গ্রহন করেন সমিতির সহ-সভাপতি উপেন্দ্র বিশ্বাস। জলমহাল ব্যবস্থাপনা নীতিমালা ২০০৯ এর শর্ত ভঙ্গ করে জলমহালটি সাবলিজ প্রদান করে সমিতির লোকজন। অধিক লাভবান হওয়ার প্রত্যাশায় সাব লিজ গ্রহিতারা বিলের পাড়ে পাম্প বসিয়ে পানি শুকিয়ে মৎস্য আহরণের প্রচেষ্টা চালায়।
এ উদ্দেশ্যে গত ক’ দিন ধরে পাম্প দিয়ে বিলের পানি অপসারন করছে সাব লিজ গ্রহিতারা। ফলে বিলের আশপাশের শতাধিক একর বোরো জমিতে পানি সেচ দিতে পারবেনা কৃষকরা। বোরো ক্ষেতের ক্ষতির কারণে ১২ মার্চ পাম্প বসিয়ে বিলের পানি শুকিয়ে মাছ ধরা বন্ধ রাখতে এলাকাকাসির পক্ষে থানায় লিখিত অভিযোগ দেন রহমত আলী।
অভিযোগের প্রেক্ষিতে থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পৌছে
২টি সেচ মেশিন বন্ধ করে দিলেও কয়েক ঘন্টার মধ্যে
আবারো মেশিন চালু করে পানি নিস্কাশন অব্যাহত রাখে বিলের সাব ইজারা গ্রহিতা। এদিকে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার পক্ষ থেকে উপজেলা কৃষি ও মৎস্য কর্মকর্তা অভিযোগের তদন্ত করে এর সত্যতা পান। রবিবার সহকারি কমিশনার (ভুমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মোঃ ইসলাম উদ্দিন ঘটনাস্থলে পৌছে জলাশয় শুকিয়ে মৎস্য আহরণের সকল কার্যক্রম বন্ধ করে দিয়েছেন।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃনুরের জামান চৌধুরী জানান, জলাশয় শুকিয়ে মাছ ধরা আইনত দন্ডনিয় অপরাধ। ছাতক সদর ইউনিয়নের তারাবিল (জলাশয়) শুকিয়ে মাছ ধরার অপচেষ্টা চলছিল। প্রশাসনের পক্ষ থেকে তা বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।##

এখানে ক্লিক করে শেয়ার করুণ